‘ইউরোপীয়রা বিশ্বের কোথাও নিরাপদে হাঁটতে পারবে না’

| বুধবার, মার্চ ২২, ২০১৭, ৯:০৪ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক ● ইউরোপীয়রা যদি তুরস্কের প্রতি তাদের বর্তমান মনোভাব বজায় রাখে তাহলে বিশ্বের কোথাও তারা নিরাপদে চলাফেরা করতে পারবেন না বলে হুঁমকি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

তুরস্কের প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়াতে ১৪ এপ্রিল দেশটিতে গণভোটের আয়োজন করা হয়েছে। এই গণভোটে প্রবাসী তুর্কি নাগরিকদের সমর্থন পেতে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সমাবেশের পরিকল্পনা করেছিল এরদোয়ান। গণভোটের সমর্থনে তুরস্কের কর্মকর্তাদের জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসে সমাবেশ নিষিদ্ধ করায় এ দুই দেশের সঙ্গে তুরস্কের কূটনৈতিক সম্পর্কে চরম উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান আঙ্কারায় সাংবাদিকদের বলেন, ইউরোপ যদি এই অবস্থা বজায় রাখে, তাহলে বিশ্বের কোনও স্থানেই ইউরোপীয় নাগরিকরা নিরাপদে রাস্তায় চলাচল করতে পারবেন না। তিনি বলেন, আমরা, তুরস্কের নাগরিক হিসেবে ইউরোপকে গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

তুরস্কের উপ-প্রধানমন্ত্রী নুমান কুর্তুলমাস বলেছেন, ‘ইউরোপজুড়ে প্রবাসীদের অনুষ্ঠানে তুরস্কের সরকারি কর্মকর্তারা এখনও অংশগ্রহণ করেছেন; তবে গণভোটের জন্য তারা প্রচারাভিযান চালাচ্ছেন না।’

তিনি বলেন, চলমান বিতর্ক দেশে প্রস্তাবিত সাংবিধানিক পরিবর্তনের গণভোটের বিষয়ে বুঝতে প্রবাসীদের সহায়তা করছে। তুর্কি এই উপ-প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইউরোপে নব্য নাৎসিবাদ ও চরম বর্ণবাদের পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে।’

জামার্নির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমার তার প্রথম ভাষণে তুর্কি প্রেসিডেন্টের ব্যাপক সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান, আপনি সবকিছুকে বিপদগ্রস্ত করে তুলেছেন। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে উল্লেখযোগ্য কোনও পদক্ষেপ নেয়া হলে তিনি স্বাগত জানাবেন।

সূত্র : দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।

Bangalnama/বাঙালনামা/যেএন/ডব্লিউকে

Please follow and like us:
0